নিজস্ব প্রতিবেদক
২০ ডিসেম্বর ২০২২, ৭:৪৯ অপরাহ্ন
অনলাইন সংস্করণ

একমাত্র কন্যার ছিন্নভিন্ন দেহ কুড়াচ্ছিলেন মা

একমাত্র কন্যার ছিন্নভিন্ন দেহ কুড়াচ্ছিলেন মা

সংসার জীবনে অনেক সাধনায় দীর্ঘ আট বছর পর গিয়াস-রাবেয়া দম্পতির ঘর আলো করে জন্ম নেয় রায়সা ছিদ্দিকা। তাই মা-বাবার কাছে রায়সা ছিল রত্ন। মা-বাবার পরম মমতায় বেড়ে উঠেছিল রত্না। কিন্তু রায়সার দুই বছর তিন মাসের জীবনগাড়িটা থেমে গেল অল্পতেই।

 

রোববার রাত সোয়া ৮টায় রাজধানীর মিরপুরে বাসের চাপায় পিষ্ট হয়ে প্রাণ হারায় মা-বাবার একমাত্র সন্তান রায়সা ছিদ্দিকা। 

 

রাজধানীর মিরপুর ১ নম্বর চত্বর কিয়াংসি চায়নিজ রেস্টুরেন্টের সামনে থেকে রায়সাকে কোলে নিয়ে  রিকশায় চড়ে বাসায় ফিরছিলেন মা রাবেয়া বসরি তুলি। কিছুদূর যেতেই এক অটোরিকশা তাঁদের রিকশাকে সজোরে ধাক্কা দেয়। মুহূর্তেই মেয়েকে নিয়ে রাস্তায় পড়ে যান রাবেয়া। রায়সা মায়ের কোল থেকে ছিটকে পড়ে কয়েক হাত দূরে। এ সময় বিআরটিসিরি একটি বাসের পেছনের চাকা শিশুটির ওপর উঠে গেলে থেঁতলে যায় মাথা। ঘটনাস্থলেই নিথর রায়সা। মাথার ওপর দিয়ে বাসের চাকা যাওয়ায় মগজসহ মুখের বিভিন্ন অংশ হয়ে যায় ছিন্নভিন্ন। কন্যার এমন মর্মন্তুদ পরিণতি দেখে উন্মত্ত হয়ে ওঠেন মা। মেয়ের তুলতুলে দেহের ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা টুকরোগুলো কুড়িয়ে জোড়া লাগানোর চেষ্টা করতে করতে বারবার চেতনা হারান। এমনটাই ছিল প্রত্যক্ষদর্শীদের বয়ান।

 

দারুসসালাম থানার ওসি শেখ আমিনুল বাশার জানান, খুবই মর্মান্তিক দুর্ঘটনা। শিশুটির মাথা-মুখের অংশ চেনার কোনো উপায় ছিল না। পুরোপুরি থেঁতলে গেছে। ঘটনার জন্য দায়ী বাসটি জব্দ করা হয়েছে। শিশুটির মা বাদী হয়ে বাস ও অটোরিকশার দুই চালকের বিরুদ্ধে সড়ক দুর্ঘটনা আইনে মামলা করেছেন। ওই মামলায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে বাসচালক আলামিন ও অটোচালক সঞ্জয়কে। গতকাল সোমবার তাদের আদালতে হাজির করা হয়। আদালত তাদের কারাগারে পাঠিয়েছেন।

 

শিশু রায়সার দাদা আনিছুর রহমান জানান, তাঁদের বাড়ি যশোরে। রায়সার বাবা গিয়াস উদ্দিন মোল্লা ঢাকায় একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করে। বাস করে মিরপুরের শাহআলী বাগে। অফিসের কাজে রোববার গিয়াস ছিল চট্টগ্রামে। রাতে একমাত্র মেয়ের মৃত্যুর খবর পেয়ে ছুটে আসে ঢাকায়। গভীর রাতে পুলিশের কাছ থেকে লাশ বুঝে নিয়ে গ্রামের বাড়ি যশোরের অভয়নগরের গোপীনাথপুরে নিয়ে যাওয়া হয়। গতকাল সকালে গ্রামের কবরস্থানে লাশ দাফন করা হয়েছে।

 

রায়সার বাবা গিয়াস উদ্দিনের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, ‘বিয়ের আট বছর পর ওপরওয়ালা আমাদের সন্তান দিয়েছিল। আল্লাহ আবার তাকে কেড়ে নিল। ঘর ঝলমলে করে রাখত মেয়েটি। তাকে ঘিরেই ছিল আমাদের সব আনন্দ। এখন সব তছনছ। বাঁচার সব ইচ্ছেই যেন ফুরিয়ে আসছে। বাকি জীবন কী নিয়ে বাঁচব! আমার স্ত্রী বারবার চেতনা হারাচ্ছে। পাগলের মতো হয়ে গেছে।’

সূত্র: সমকাল

 

 

আর.ডিবিএস

Facebook Comments Box

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

পঞ্চগড়ে ফেন্সিডিলসহ মাদক কারবারি আটক

দেবীগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ গেল ভাতিজার, গুরতর আহত চাচা

দেবীগঞ্জে নির্বাচনী সহিংসতার মামলায় পাঁচ জন আটক 

টানা তিনবার ইউপি নির্বাচনে হেরে যাওয়া মদন মোহন উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত

দেবীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মদন, মনু ও রিতু নির্বাচিত

দেবীগঞ্জে উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন মদন মোহন রায় 

দেবীগঞ্জে শান্তিপূর্ণভাবে চলছে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ

সবাইকে কাঁদিয়ে চিরবিদায় নিলেন প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি

রাত পোহালেই দেবীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের নির্বাচন

মধ্যরাতে শেষ হচ্ছে উপজেলা নির্বাচনের প্রচারণা 

১০

দেবীগঞ্জে স্কেভেটরের নিচে চাপা পড়ে প্রাণ গেল চালকের 

১১

দেবীগঞ্জে ভোট গ্ৰহণকারী কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত 

১২

দেবীগঞ্জে নারী মাদক ব্যবসায়ী আটক

১৩

দেবীগঞ্জে স্বাধীন ফিলিস্তিন প্রতিষ্ঠার দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল

১৪

দেবীগঞ্জে ফারমার্স ক্লাইমেট স্মার্ট স্কুলের মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত

১৫

পঞ্চগড়ে বিএসএফের গুলিতে দুই বাংলাদেশি নিহত 

১৬

তাপদাহের কারনে পাইকারি বাজারে বেড়েছে মরিচের দাম

১৭

দেবীগঞ্জ টেকনিক্যাল স্কুলে অভিভাবক সম্মেলন অনুষ্ঠিত

১৮

নির্বাচনে অংশগ্রহণ করায় বিএনপির দুই নেতা বহিষ্কার

১৯

দেবীগঞ্জে মরিচের বস্তায় ফেনসিডিল পাচারের সময় মাদক ব্যবসায়ী আটক

২০